English

আজ ১২ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মে ২০২০ ইং

২রা শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

সময় : রাত ১০:৫০

বার : মঙ্গলবার

ঋতু : গ্রীষ্মকাল

P5156E 222 1
রাজশাহী জেলা প্রশাসকের কাছে অবৈধ পুকুর খনন বন্ধের অভিযোগ।

রাজশাহী জেলা প্রশাসকের কাছে অবৈধ পুকুর খনন বন্ধের অভিযোগ।

 সুমন রাজশাহী প্রতিনিধি:রাজশাহীর পবা উপজেলায় অবৈধ পুকুর খনন বন্ধের জন্য জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগীরা। গত (২৬ এপ্রিল) রবিবার দুপুরে অভিযোগটি প্রদান করেন মতিহার থানাধীন বুধপাড়া এলাকার মোঃ রুবেল ও একই এলাকার মুরসিদা খাতুন।

অভিযোগ সুত্রে জানাগেছে, হাই কোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কুখন্ডি এলাকায় এমকেআর ইট ভাটা সংলগ্ন জমির শ্রেণি পরিবর্তন করে পুকুর খনন করা হচ্ছে।

পুকুরটি খনন করছেন বুধপাড়া এলাকার মৃত ইসরাফিলের ছেলে ও রাবি ছাত্রলীগের সভাপতি কিবরিয়ার বড় ভাই। অভিযোগে আরও উল্লেখ করা হয়, ধানী জমি লিজ নিয়ে পুকুর খনন করছেন স্বপন,পুকুর খনন করার কারনে তাদের ফসলি জমির কিছু অংশ সেই পুকুরে ধসে যাচ্ছে এবং এতে করে জমির ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে।

উক্ত স্থানে পুকুর খনন বন্ধ না করা গেলে চাষাবাদ করা সম্ভব হবে না বলে উল্লেখ করেন তারা। এর আগে ওই পুকুর বন্ধে ভ্রম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা করেন পবা উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি (অতিরিক্ত) আবুল হায়াত।

 তবে অভিযোগ পাওয়া গেছে ওই পুকুর পুনরায় খনন করার জন্য বিভিন্ন তদবির চালিয়ে যাচ্ছেন প্রভাবশালী নেতার ভাই স্বপন। এদিকে দেশব্যাপী করোনা ভাইরাসের প্রভাবে খাদ্য সংকটে পড়তে যাচ্ছে পুরা দেশ।

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের কারণে মহামারীতে ক্রান্তিকাল চলছে দেশে। সামগ্রিক স্থবিরতায় থমকে গেছে কেন্দ্র থেকে প্রান্ত অবধি সবকিছু। রীতিমতো সরকার যেখানে বলছে দেশে এক ছটাক জায়গা যেন ফাকা না থাকে। ফসল উৎপাদনে দেশের কৃষকসহ সকল মানুষকে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

সেখানেই আইকে বিদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে কিছু আর্থলোভী কুচক্রি মহল নিজেদের ফাইদা হাসিল করতে মেতে উঠেছে পুকুর খনন কাজে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রাজশাহী পবা উপজেলায় জমির শ্রেণী পরিবর্তন করে শত-শত বিঘা তিন ফসলি জমি উজাড় করে ভেকু মেশিন দিয়ে দিন রাত সোমানে পুকুর খনন করছে।

এদিকে কৃষিবিদরা বলছেন, ফসলি জমিতে পুকুর খনন বন্ধ করা না গেলে আগামীতে ব্যাপক খাদ্য সংকটে পড়তে পারে দেশ, বেকার হতে পারে কৃষক, এমন এক সময় আসবে ১০০ টাকা কেজি দরে চাল খুজে পাওয়া যাবেনা। হতাসায় ভুগবে দেশের খেটে খাওয়া সাধারন মানুষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর